সূরা আশ শামস | অর্থসহ বাংলা উচ্চারণ

সুরা নং – ০৯১ : আশ শামস (সূর্য), মক্কায় অবতীর্ণ, আয়াত সংখ্যা – ১৫, অবতীর্ণের অনুক্রম – ০২৬

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম
পরম করুণাময় অতি দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।

[1] وَالشَّمْسِ وَضُحَاهَا

[1] অশ্ শাম্সি অ দ্বুহা-হা
[1] কসম সূর্যের ও তার কিরণের।

[2] وَالْقَمَرِ إِذَا تَلَاهَا

[2] অল্ ক্বমারি ইযা-তালা-হা
[2] কসম চাঁদের, যখন তা সূর্যের অনুগামী হয়।

[3] وَالنَّهَارِ إِذَا جَلَّاهَا

[3]অন্নাহা-রি ইযা-জ্বাল্লা-হা
[3] কসম দিবসের, যখন তা সূর্যকে প্রকাশ করে।

[4] وَاللَّيْلِ إِذَا يَغْشَاهَا

[4] অললাইলি-ইযা ইয়াগ্শা-হা
[4] কসম রাতের, যখন তা সূর্যকে ঢেকে দেয়।

[5] وَالسَّمَاءِ وَمَا بَنَاهَا

[5] অস্সামা-য়ি অমা-বানা-হা-।
[5] কসম আসমানের এবং যিনি তা বানিয়েছেন।

[6] وَالْأَرْضِ وَمَا طَحَاهَا

[6] অল্ র্আদ্বি অমা-ত্বোয়াহা-হা-।
[6] কসম যমীনের এবং যিনি তা বিস্তৃত করেছেন।

[7] وَنَفْسٍ وَمَا سَوَّاهَا

[7] অ নাফ্সিঁও অমা-সাওয়্যা-হা-।
[7] কসম নাফ্সের এবং যিনি তা সুসম করেছেন।

[8] فَأَلْهَمَهَا فُجُورَهَا وَتَقْوَاهَا

[8] ফায়াল্হামাহা-ফুজুরহা- অতাকওয়া-হা-।
[8] অতঃপর তিনি তাকে অবহিত করেছেন তার পাপসমূহ ও তার তাকওয়া সম্পর্কে।

[9] قَدْ أَفْلَحَ مَنْ زَكَّاهَا

[9] ক্বদ্ আফ্লাহা-মান্ যাক্কা-হা-।
[9] নিঃসন্দেহে সে সফলকাম হয়েছে, যে তকে পরিশুদ্ধ করেছে।

[10] وَقَدْ خَابَ مَنْ دَسَّاهَا

[10] অক্বদ্ খ-বা মান্ দাস্সা-হা-।
[10] এবং সে ব্যর্থ হয়েছে, যে তা (নাফ্স)-কে কলুষিত করেছে।

[11] كَذَّبَتْ ثَمُودُ بِطَغْوَاهَا

[11] ক্বায্যাবাত্ ছামূদু বিত্বোয়াগ্ওয়া-হা য়।
[11] সামূদ জাতি আপন অবাধ্যতাবশত অস্বীকার করেছিল।

[12] إِذِ انْبَعَثَ أَشْقَاهَا

[12] ইযিম্ বা‘আছা আশ্ক্ব-হা-
[12] যখন তাদের সর্বাধিক হতভাগা ব্যক্তিটি তৎপর হয়ে উঠল।

[13] فَقَالَ لَهُمْ رَسُولُ اللَّهِ نَاقَةَ اللَّهِ وَسُقْيَاهَا

[13] ফাক্ব-লা লাহুম্ রসূলুল্লা-হি না-ক্বতাল্লা-হি অসুকইয়া-হা-।
[13] তখন আল্লাহর রাসূল তাদেরকে বলেছিল, ‘আল্লাহর উষ্ট্রী ও তার পানি পান সম্পর্কে সতর্ক হও।’

[14] فَكَذَّبُوهُ فَعَقَرُوهَا فَدَمْدَمَ عَلَيْهِمْ رَبُّهُمْ بِذَنْبِهِمْ فَسَوَّاهَا

[14] ফাকায্যাবূহু ফা‘আক্বরূহা- ফাদাম্দামা ‘আলাইহিম্ রব্বুহুম্ বিযাম্বিহিম্ ফাসাওয়্যা-হা-।
[14] কিন্তু তারা তাকে অস্বীকার করল এবং উষ্ট্রীকে যবেহ করল। ফলে তাদের রব তাদের অপরাধের কারণে তাদেরকে সমূলে ধ্বংস করে দিলেন। অতঃপর তা একাকার করে দিলেন।

[15] وَلَا يَخَافُ عُقْبَاهَا

[15] অলা-ইয়াখ-ফু ‘উকবা-হা।
[15] আর তিনি এর পরিণামকে ভয় করেন না।

বি.দ্র: অন্য ভাষায় কুরআন পুরোপুরি সঠিক উচ্চারণ লেখা কখনই সম্ভব নয়। অনুগ্রহপূর্বক কষ্ঠ করে আরবি উচ্চারণ শিখে নিবেন। ধন্যবাদ।

About the Author

Lutful Al Numan

No Comments

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *