সি প্রোগ্রামিং কি? সি প্রোগ্রামিং পরিচিতি, সুবিধা ও অসুবিধা

সি হচ্ছে উচ্চতরের একটি জনপ্রিয় প্রোগ্রামিং ভাষা। অর্থাৎ এটি একটি প্রসিডিউরাল প্রোগ্রামিং ল্যাংগুয়েজ। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বেল ল্যাবরেটরিতে ১৯৭০ সালে ডেনিস রিচি সি ভাষার উদ্ভাবন করেন। বর্তমানে এটি একটি শক্তিশালী ভাষা হিসেবে পরিচিত। সি ভাষা দিয়ে তৈরি কয়েকটি সফটওয়্যার হচ্ছে অপারেটিং সিস্টেম, অ্যাসেম্বলার,ডিভাইস ড্রাইভার, ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট ইত্যাদি।

সি প্রোগ্রামিং ভাষা উন্নয়নের ইতিহাস

সি ভাষা ব্যবহার করে সবধরণের প্রোগ্রাম রচনা করা যায়। এটি একটি প্রসিডিউরাল প্রোগ্রাম ভাষা। C নামটি মার্টিন রিচার্ডস এর উদ্ভাবিত BCPL ভাষা থেকে এসেছে, যা সর্বপ্রথম ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ে রিসার্স অরিয়েন্ডেড কাজে ব্যবহৃত হতো।

আরও পড়ুন – প্রোগ্রামিং কি? জনপ্রিয় কয়েকটি প্রোগ্রামিং ভাষা

ডেনিস রিচি ১৯৭০ সালে এ ভাষা উদ্ভাবন করেন। ১৯৭৮ সালে তাঁর লিখা “দ্যা সি প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ” বইটি প্রকাশ পাওয়ার পর এবং মাইক্রো কম্পিউটারের জনপ্রিয়তা বাড়ার সাথে সাথে C এর ব্যাপক প্রচলন শুরু হয়।

C প্রোগ্রামিং ভাষার বৈশিষ্ট্য

  • সি ল্যাংঙ্গুয়েজ দিয়ে সব ধরণের সমস্যার সমাধান করা যায়।
  • এ ভাষায় main ( ) ফাংশন নামে একটি ফাংশন অবশ্যই থাকতে হবে। এটি দ্বারা প্রোগ্রাম শুরু হয়।
  • এর সাহায্যে সহজেই উচ্চস্তরের ভাষা এবং নিম্ন স্তরের ভাষার মধ্যে সমন্বয় সাধন করা যায়।
  • এটি মধ্য স্তরের ভাষা।
  • এ ভাষায় যেসব Statement থাকে সেগুলোকে দ্বিতীয় বন্ধনীর মাঝে রাখতে হয়।
  • প্রতিটি Statement এর শেষে সেমিকোলন দিতে হয়।
  • এ ভাষা দিয়ে লিখিত এক মেশিনের প্রোগ্রাম অন্য মেশিনে চালানো যায় ইত্যাদি।

C প্রোগ্রামিং ভাষার সুবিধা

  • C প্রোগ্রাম দিয়ে সব ধরণের সমস্যার সমাধান করা যায়।
  • এ ভাষার প্রয়োজনে if, while, for,switch-case ইত্যাদি কন্ট্রোল স্টেটমেন্ট ব্যবহার করা হয়।
  • এ ভাষায় পর্যাপ্ত পরিমাণে লাইব্রেরি ফাংশন, ব্রাঞ্চিং স্টেটমেন্ট ও কন্ট্রোল স্টেটমেন্টের সুবিধা পাওয়া যায়।
  • এ ভাষায় লিখিত এক মেশিনের প্রোগ্রাম অন্য মেশিনে চালানো যায় ইত্যাদি।

C প্রোগ্রামিং ভাষার অসুবিধা

  • এ ভাষায় সব প্রোগ্রাম ছোট হাতের অক্ষরে লিখতে হয়।
  • এ ভাষায় স্পেস অগ্রাহ্য করে।
  • সঠিকভাবে চলক ঘোষণা করতে হয়।
  • লাইব্রেরি ফাংশনের header ফাইলগুলো ঠিকমতো declare করতে হয় ইত্যাদি ।

ত আজ এ পর্যন্তই। আর্টিকেলটি ভালো লাগলে অবশ্যই বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন।

Written by Israt Jahan Reya

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

কার্বন চক্র কি? কার্বন চক্রের ব্যাখ্যা

ক্লোরিন কি? ক্লোরিনের বৈশিষ্ট্য এবং ব্যবহার