শীতে ছেলেদের ত্বক সতেজ রাখুন ৫টি কার্যকর উপায়ে!



শীতে সবার ত্বকেই রুক্ষতা আসে। অনেকের ত্বক খসখসে ভাব হয়ে যায়। তাই অন্য ঋতুর তুলনায় শীতে ত্বকের যত্ন একটু বেশি নিতে হয়। কিন্তু ত্বকের যত্নের ক্ষেত্রে অধিকাংশ ছেলেরাই উদাসীন। শীতে ত্বকের সঠিক যত্ন না হলে শুষ্ক ত্বকের জন্য অনেকের মেজাজ খিটখিটে হতে দেখা যায়। তাই শীতে ত্বকের সঠিক যত্ন নেওয়া জরুরী।



তাই আজকে আমরা আলোচনা করবো কিভাবে শীতে সহজে ত্বকের যত্ন নেওয়া যায়।



তাহলে চলুন শুরু করা যাক,,,,,,!!!



১. শেভ করা


যারা প্রতিনিয়ত শেভ করেন তারা জানেন ( না জানলে খেয়াল করে দেখবেন) শেভ করার পর ত্বক খসখসে হয়ে যায়। তাছাড়া শেভ করলে চামড়ায় আলাদা একটি চাপও পড়ে। তাই শেভ করার সময় ভাল মানের শেভিং ক্রিম ব্যবহার করতে হবে।


তাছাড়া ত্বককে শুষ্কতার হাত থেকে রক্ষা করতে শেভ করার পর মুখে অবশ্যই উন্নত মানের আফটার শেভ ব্যবহার করতে হবে।



২. প্রসাধনী ব্যবহার


ত্বক তৈলাক্ত হয়ে গেলে তেলের কারণে ত্বকে বা চেহারায় ধুলো-ময়লা জমতে পারে। তাই ত্বকের তৈলাক্ত ভাব দূর করতে সর্বদা অয়েল ফ্রি ফেসওয়াশ (Oil Free Freshwash) ব্যবহার করবেন।


তাছাড়া রোদে চলাচলের ক্ষেত্রে ত্বকে সানস্ক্রিন ব্যবহার করুন। নয়তো অতিরিক্ত রোদের প্রভাবে ত্বকের মসৃণতা নষ্ট হয়ে যেতে পারে। তাই রোদে চলাচলের ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করুন।


৩. পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকা


শীতে পানি ঠান্ডা থাকে বলে গোসল করা বিরক্ত লাগে। তাই গোসল করতে সমস্যা হলে প্রয়োজনে কুসুম গরম পানিতে গোসল করুন। শীতে ত্বক সতেজ রাখতে গোসলের পর অবশ্যই গায়ে লোশন মাখুন। এতে ত্বকের মসৃণতা সারা দিনের জন্য বজায় থাকবে।


তাছাড়া প্রতিদিন ৩-৪ বার মুখ ধোয়ার অভ্যাস গড়ে তুলুন। এতে চেহারায় অতিরিক্ত ময়লা জমবে না।


মুখ ধোয়ার পর ময়েশ্চারাইজার ক্রিম ব্যবহার করতে হবে। এতে ত্বকের কোমলতা ঠিক থাকবে।



৪. পর্যাপ্ত পানি পান করুন


শীতে অতিরিক্ত ঠান্ডা লাগে বলে অনেকেই কম পানি পান করেন। যা শরীর তথা ত্বকের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। ত্বকের যত্নে পানির বিকল্প নাই। তাই পর্যাপ্ত পানি পান করুন। সাধারনত দিনে ৮ থেকে ১০ গ্লাস পানি পান করুন। তাহলে শীতে আপনার ত্বককে শুষ্কতার হাত থেকে অনেকাংশে রক্ষা করতে পারবেন।


৫. শাকসবজি ও মৌসুমী ফল


শাকসবজি খাওয়ার উপকারিতা সম্পর্কে আমরা সবাই মোটামোটি জানি। শরীর এবং ত্বককে মসৃণ ও সতেজ রাখতে নিয়মিত শাকসবজি খাওয়ার অভ্যাস করুন। শীতকালে বাজারে প্রচুর শাকসবজি পাওয়া যায়৷ তবে অবশ্যই বাজারের তরতাজা শাকসবজি খাবেন।


তাছাড়া প্রত্যেক মৌসুমেই কিছু মৌসুমী ফল পাওয়া যায়। যা শরীরে জন্য খুবই উপকারী।

শীতকালে বরই, জলপাই, আমলকি, সফেদা, কমলালেবু, আপেল এবং ডালিমের মতো মৌসুমী ফল পাওয়া যায়। এগুলো শরীরের পাশাপাশি ত্বককে সতেজ রাখতে খুবই উপকারী। তাই নিয়মিত মৌসুমী ফল খাওয়া নিশ্চিত করুন।



সর্বোপরি উপরোক্ত টিপস গুলো মেনে চলার ট্রাই করুন। এই টিপস গুলো ফলো করলে আশা করি আপনার ত্বককে শতভাগ সুরক্ষিত রাখতে পারবেন।


ব্লগটি ভাল লাগলে অবশ্যই বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন।


ধন্যবাদ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *