গুগল কি? গুগলের জনক ও প্রতিষ্ঠাতা কে ও কত সালে আবিষ্কার হয়?

গুগলের কথা জানে না এমন লোক খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। কিন্তু অনেকেই আছে যারা হয়তো জানে না গুগল, এর কাজ বা ব্যবহার সম্পর্কে জানে না। তবে আপনি যদি কখনো ইন্টারনেট ব্যবহার করে থাকেন, তাহলে ইন্টারনেটে কোন তথ্য খুঁজে পাওয়ার জন্য একবার হলেও Google ব্যবহার করেছেন। চলুন তাহলে গুগল সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেই।

Google কি?

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ওয়েব সার্চ ইঞ্জিন হলো গুগল। সার্চ ইঞ্জিন হলো ইন্টারনেট বাওয়েব এর উপর ভিত্তি করে বানানো এমন একটি অ্যাপ্লিকেশন বা টুল যা ব্যবহার করে লোকেরা ইন্টারনেট থেকে যেকোন তথ্য খুব দ্রুত ও সহজে পাওয়া যায়।

পড়ুন – গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট কি?গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট কি কাজে লাগে?

ইন্টারনেট থেকে যেকোন তথ্য খুব সহজে বের করে নেওয়ার জন্য Google সার্চ ইঞ্জিন সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা হয়। Google.com সারা বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ভিজিট করা ওয়েবসাইট।

বর্তমানে গুগল একটি মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি হয়ে দাঁড়িয়েছে তাছাড়া সার্চ ইঞ্জিনের বাইরেও এর আরো অনেক ধরণের পণ্য মার্কেটে অনেক প্রচলিত। যেমন – গুগল ক্লাউড কম্পিউটিং সার্ভিস, গুগল প্লে স্টোর, এডসেন্স ইত্যাদি।

Google এর সবচেয়ে বেশি ইনকাম হয় তাঁর অনলাইন Advertising থেকে। আপনি জেনে অবাক হবেন যে, গুগলের একদিনের ইনকাম প্রায় ৬ কোটি টাকা।

তবে Google যতই সফলতার দিকে এগিয়ে যাক না কেন এটা খেয়াল রাখবেন Google শুরু হয়েছিল কেবল একটি ওয়েব সার্চ ইঞ্জিন থেকেই। চলুন তাহলে Google সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জেনে নেই।

Google এর ফুল ফর্ম কি?

Google এর ফুল ফর্ম হলো Global Organisation of Oriented Group Language of Earth. অফিশিয়ালি গুগলের কোন ফুল ফর্ম নেই। Google শব্দটি Googol শব্দ থেকে নেওয়া হয়েছে। এর অর্থ হলো “অনেক বড় সংখ্যা”।

Google এর জন্মদিন কবে?

প্রতি বছর ২৭ সেপ্টেম্বর Google এর জন্মদিন পালন করা হয়।এমনিতে গুগল অন্তভূক্ত করা হয়েছিল ৪ সেপ্টেম্বর।

পড়ুন – গুগল থেকে টাকা আয় করার ৩ টি কার্যকরী উপায়

Google এর জনক ও মালিক কে?

Google এর জনক হলো Larry Page এবং Sergey Brin. তারা যখন California র Standford Unversity তে Ph.D. করছিলেন, তখন একটি রিসার্চ প্রজেক্ট হিসেবে গুগলের উপরে কাজ শুরু করছিলেন। আর তাদের এই সফলতার ফলস্বরূপ আমরা Google পেয়েছি।

Google এর মালিক অনেকে। আসলে গুগল একটি Publicly-traded company. যারা গুগলের শেয়ার কিনেছেন তারায় মূলত Google এর মালিক। সে হিসেবে গুগলের লক্ষ লক্ষ মালিক রয়েছে।

তবে গুগলে সবচেয়ে বেশি শেয়ার রয়েছে –

  • LarryPage – 27.4 %
  • Sergey Brin – 26.9 %
  • Eric Schmidt – 5.5 %

গুগলের ইতিহাস / কত সালে Google প্রতিষ্ঠা করা হয়?

গুগল সার্চকে প্রচার করার জন্য Larry Page ও Sergey Brin এর দ্বারা ১৯৯৮ সালে Google Company চালু করা হয়েছিল। পরে খুব অল্প সময়ের মাঝেই এটি সবচেয়ে বেশি ব্যবহার হওয়া ওয়েব সার্চ ইঞ্জিন হয়ে দাঁড়িয়েছে।

Larry Page ও Sergey Brin দুজনেই Ph.D ছাত্র ছিলেন। দুজনে একসাথে একটি Search Algorithm তৈরি করলেন। যার নাম ছিল BackRub. আর পরবর্তী সময়ে এর নাম পরিবর্তন করে রাখা হয় Google.

১৯৯৬ সালে গুগলকে শুধুমাত্র একটি সার্চ প্রজেক্ট হিসেবে চালনা করা হয়েছিল। আর এই প্রজেক্টটির নাম ছিল BackRub. নানা বাঁধা পেরিয়ে এই প্রজেক্ট সফল হলো এবং পরে এর নাম Googly Search করা হলো।

রিসার্চ করার সময় সার্চ ইঞ্জিনটির নিজস্ব কোন ডোমেইন ছিল না। তারা Standford University র সাইট থেকেই google.standford.edu এবং z.standford.edu ডোমেইনের মাধ্যমেই ব্যবহার করেছিলেন। ১৫ সেপ্টেম্বর ১৯৯৭ সালে Google.com ডোমেইন নামটি প্রথম বারের জন্য রেজিস্ট্রার করা হয়েছিল।

পড়ুন – গুগল ক্রোম ব্রাউজারের লুকায়িত কিছু ফিচার

Google নামের ইতিহাস

রিসার্চ করার সময় গুগলের নাম ছিল BackRub। প্রজেক্ট সফল হওয়ার পর এর নাম রাখা হয় Google. এবার অনেকের মনে প্রশ্ন জাগতে পারে Google নামের অর্থ কি? কেন এর নাম গুগল দেওয়া হয়েছে?

Google নামটি Google শব্দটির বর্ণাশুদ্ধি থেকে নেওয়া হয়েছে । অংকে Google শব্দটির অনেক গুরুত্ব রয়েছে। এর মানে হলো 1 এর পেছনে 100 টি 0 (শূন্য)। এ নামটি দেওয়ার কারণ হলো এই সার্চ ইঞ্জিনটি আমাদের খোঁজা তথ্যের সমাধান দিতে সক্ষম হবে। অর্থাৎ, সার্চ ইঞ্জিনটি আমাদের অনেক বড় সংখ্যায় তথ্য প্রদান করবে।

Larry Page 1998 সালে গুগল লগোর বা লেটারের একটি Computerized Version তৈরি করেছিলেন একটি ফ্রি Graphic Software ব্যবহার করে। সফটওয়্যারটির নাম হলো GIMP.

গুগলের উদ্দেশ্য কি?

সর্বপ্রথম গুগল ছিল একটি ওয়েব সার্চ ইঞ্জিন। যার উদ্দেশ্য ছিল ইন্টারনেটে থাকা বিভিন্ন তথ্য আমাদের প্রয়োজন হিসেবে সহজে এবং সঠিকভাবে প্রদান করা। এই উদ্দেশ্যেই গুগল কাজ করে যাচ্ছে।

বর্তমানে গুগল কেবল একটি সার্চ ইঞ্জিন নয়, এটি একটি মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি। সার্চ ইঞ্জিন দ্বারা সঠিক তথ্য সহজভাবে প্রদান করা ছাড়াও এর আরো অনেক উদ্দেশ্য রয়েছে।

পড়ুন – গুগল ডকস এর প্রয়োজনীয় 32 টি শর্টকাট কিবোর্ড

গুগলের অনেক প্রোডাক্ট বা সার্ভিস রয়েছে। যেমন – Android OS, Google Chrome browser, Gmail, YouTube, Google Adsense, Google map ইত্যাদি।

অর্থাৎ, গুগলের উদ্দেশ্য হলো, সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রা সহজ, সরল ও উন্নত করা। এছাড়াও দিনের পর দিন নতুন নতুন অনলাইন বা ওয়েব সার্ভিস গুগল দ্বারা প্রচার হওয়াতে, অনলাইন জীবনযাপন অনেক সহজ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

গুগলের বিখ্যাত কিছু প্রোডাক্ট ও এদের কাজ

যেকোন ক্ষেত্রে গুগলের অনেক ধরণের কাজের Apps, Software, online services রয়েছে। নিম্নে আমি সেরা কয়েকটও গুগল প্রডাক্ট নিয়ে বলবো।

Google Drive

Google drive ব্যবহার করে খুব সহজে যেকোনো ফাইল, সফটওয়্যার, ছবি, পিডিএফ, ভিডিও ইত্যাদি গুগলের ক্লাউড স্টোরেজে সেভ করে রাখতে পারবেন। এতে আপনার ফোন বা কম্পিউটারের স্টোরেজ স্পেস বেঁচে যাবে এবং যেকোনো জায়গা থেকে সেই ফাইলগুলো আবার ডাউনলোড করতে পারবেন।

পড়ুন – গুগল ড্রাইভ (Google drive) কি? গুগল ড্রাইভ ব্যবহার করবেন কীভাবে?

Google map

বর্তমানে প্রায় সকলেই গুগল ম্যাপ ব্যবহার করে। এই সার্ভিস ব্যবহার করে আমরা যেকোনো জায়গার লোকেশন বা অ্যাড্রেস খুব সহজেই খুঁজে পাই।

Google Adsense

ইন্টারনেট থেকে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে অনলাইনে টাকা আয় করার সবথেকে সেরা মাধ্যম হলো Google Adsense.

Google Play Store

Google Play Store এর মাধ্যমে আমরা সহজেই মোবাইলের জন্য যেকোনো অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারি।

Google translat

এটি এমন একটি সার্ভিস যা ব্যবহার করে যেকোনো ভাষাকে অন্য ভাষায় ট্রান্সলেট করা যায়।

আরও পড়ুন – সার্চ ইঞ্জিন কি? সার্চ ইঞ্জিন কিভাবে কাজ করে?

YouTube

বর্তমানে ইউটিউব এমন একটি মাধ্যম যার দ্বারা আমরা যেকোনো ভিডিও দেখতে পারি। এছাড়া এর মাধ্যমে টাকা আয় করা যায়। এছাড়া গুগলের আরও অনেক সার্ভিস রয়েছে।


ত আজ এখানেই থাকলো। আর্টিকেলটি ভালো লাগলে অবশ্যই শেয়ার করবেন।

About the Author

Israt Jahan

আমি ইসরাত জাহান। পড়াশোনা করছি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে। লিখতে খুব ভাল লাগে। তাই প্রতিনিয়ত লিখার চেষ্টা করে যাছি। আমার জন্য দোয়া করবেন। ধন্যবাদ।

No Comments

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *